বাকি জীবন গ্রামে কৃষিকাজ করেই কাটাবো’
স্বপ্ন নিউজ ডেস্ক
ডিসেম্বর ১৪, ২০২০, ১:৩৫ অপরাহ্ণ
স্বপ্ন নিউজ ডেস্ক : নন্দিত কণ্ঠশিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদ। সম্প্রতি তিনি তার বর্ণাঢ্য ও সুদীর্ঘ সংগীত ক্যারিয়ারের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন। এবার ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস’-এর ১৫তম আসরে আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন। সেই সম্মাননা গ্রহণকালেই তিনি এই ঘোষণা দেন।
হঠাৎ বর্ণাঢ্য সংগীত ক্যারিয়ারের ইতি টানার কারণ জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমার সংগীত জীবনে পেয়েছি লাখো মানুষের ভালোবাসা। এ জন্য ভক্তদের জন্য আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। অনেক সম্মাননা পেয়েছি, নতুন করে আর কিছু পাওয়ার নেই। আর আমি আমাদের দেশের সংগীতাঙ্গনের কথা ভালোভাবেই জানি। শিল্পীদের শেষ বয়সে ছুড়ে ফেলে দেয়া হয়। আবার আমার নিজের রেঞ্জও আমার জানা। তাই আমি মনে করি, এটাই বিদায় নেয়ার ভালো সময়। এখনো শক্তি আছে, গান করছি। মানুষ আমাকে ভালোবাসা দিচ্ছে। এটা থাকতে থাকতে সরে আসতে চাচ্ছি। কেউ ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেয়ার আগে নিজেই চলে যেতে চাই। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বরের পর আর গাইব না।

আমার আর মঞ্চে ওঠার ইচ্ছা নেই। তবে ১৯৮৬ সালে বাবার নামে একটি জনকল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে। সেখান থেকে অসহায় মানুষের চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়। যদি সেই ট্রাস্টের কল্যাণে কেউ কনসার্ট আয়োজন করে, তখন হয়তো দায়বদ্ধতা থেকে গাইতে পারি। নইলে আর কখনোই মঞ্চে উঠব না।

এরই মধ্যে আমি আমার চিরচেনা শহর ঢাকা ছেড়ে নিজ গ্রামে চলে এসেছি। এখানে আমার পৈতৃক জমি রয়েছে। সেগুলো দেখাশোনা করছি। কৃষিকাজের পাশাপাশি মৎস্য চাষ করছি। কিছুদিন পর বাড়ির আঙিনায় সবজি ও ফলফলাদির চাষ করব। যতদিন বেঁচে আছি ততদিনই গ্রামে থাকতে চাই।

আপনার মতামত লিখুন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন বড় বোন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন তিনি।

ঢাকা অফিস

সম্পাদক : মোঃ ইয়াসিন টিপু

নাহার প্লাজা , ঢাকা-১২১৬

+৮৮ ০১৮১৩১৯৮৮৮২ , +৮৮ ০১৬১৩১৯৮৮৮২

shwapnonews@gmail.com

পরিচালনা সম্পাদক : মিহিরমিজি

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সপ্ন নিউজ
Powered By U6HOST