প্রথম প্রেম যে কারণে ভোলা যায় না
স্বপ্ন নিউজ ডেস্ক
ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২১, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ

প্রেমে পড়েননি এমন মানুষ পৃথিবীতে বোধহয় একজনও পাওয়া যাবে না। এই প্রেমের জন্য অমর হয়ে আছেন অনেকে। প্রেম সবার জীবনেই আসে। শুধু বয়সের একটা ব্যবধান থেকে যায়। প্রেম নিয়ে নানা জনের নানা মত। তবে প্রেমে পড়ার পেছনে রয়েছে অনেক মনস্তাত্ত্বিক ও বৈজ্ঞানিক কারণ। মনোবিদ ও ব্যবহার বিশেষজ্ঞদের মতে, হরমোনের নানা কারণ, চারপাশের অবস্থান, পরিস্থিতি এসব কারো সঙ্গে মতের মিলের চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

তবে প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, মানে না কোনো যুক্তি তর্ক। যে কারণে দিনক্ষণ ঠিক করে কারো জীবনে প্রেম আসে না। তবে যাই হোক, প্রেম তো আসে। প্রথম প্রেম বা ভালোবাসা প্রতিটি মানুষের কাছেই একটু বেশিই স্পেশাল। অনেকে বলেন ‘চাইলেই কি প্রথম প্রেম ভুলা যায়?’। এই প্রশ্নের উত্তর মুখে হ্যাঁ দিলেও মনে মনে শতবার না বলছেন। জীবনের একটি নতুন অধ্যায়ের কথা কেউ কোনো দিন চাইলেও ভুলতে পারে না।

যে কারণে জীবনে হাজারবার প্রেম আসলেও প্রথম প্রেমের জায়গা কেউ দখল করে নিতে পারে না কোনোটিই। তবে কী কারণে প্রথম প্রেম ভুলা যায় না জানেন কি? এর পেছনে রয়েছে মনোবিদদের নানান ব্যাখ্যা।
যদি কারো প্রথম সম্পর্কে কোনো ভয়ের ঘটনা বা স্মৃতি থাকে তাহলে তো মনে থাকাই স্বাভাবিক। বিপরীতে মানুষকে ভালোবাসার কথা বলার সময় প্রত্যাখ্যান হওয়ার ভয়, তার প্রতিক্রিয়া কেমন হতে পারে, পারিবারিকভাবে কোনো ঝামেলা হওয়ার ভয় এবং প্রেম হওয়ার পর শুরুর দিকে আশা পূরণ করা নিয়ে শঙ্কা, সম্পর্ক টিকে উঠবে কিনা ইত্যাদি ইত্যাদি ভয়ভীতি কাজ করে। এখানে উদ্বেগই মূল বিষয়।

গবেষকরা বলছেন, প্রথম প্রেম টিকে না উঠলে বা পরিপূর্ণতা না পেলে অনেকে পরবর্তীতে হয়তো অনেকবার প্রেমের সম্পর্কে জড়ায়। কিন্তু সেই সব প্রেমের অভিজ্ঞতা ছাপিয়ে মনে দাগ কেটে আছে প্রথম প্রেমের স্মৃতি। প্রথম প্রেমের মধুময় কিছু যন্ত্রণা, কিছু পাওয়া না পাওয়ার অনুভূতি আচ্ছন্ন করে রাখে মনকে। হৃদয়ে এতোটাই জায়গা করে নেয় যে কারণে কয়েক যুগ পরও মানুষের স্মৃতি আবেগী হয়ে উঠে সেই প্রথম প্রেমের কথা মনে পড়ায়।
মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, প্রথম প্রেম অনেকটাই ‘স্কাইডাউভ’ বা প্রথমবার আকাশ থেকে লাফ দেয়ার মতো। প্রথমবার আকাশ থেকে লাফ দেয়ার ঘটনা যেভাবে স্মৃতিতে গেঁথে যায় পরবর্তীকালের কোনো ঘটনা আর হৃদয়ে থেকে যায় না। কারণ প্রথমবার আকাশ থেকে লাফ দেয়ার সময় সর্বোচ্চ ভয় কাজ করে যা পরবর্তীতে থাকে না।

যুক্তরাষ্ট্রের কানেটিকাট কলেজের মনোবিজ্ঞানী জেফারসন সিঙ্গার বলেছেন, অধিকাংশ মানুষের ১৫-২৬ বছর বয়সের মধ্যে ব্রেনে ‘মেমোরি বাম্প’ বা ‘আকস্মিক স্মৃতি’র গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় থাকে। যে সকল মানুষের আকস্মিক স্মৃতির বিষয় থাকে সেই সকল মানুষ অনেক বেশি স্মৃতিকাতর বা স্মৃতি রোমন্থন করেন। তবে তা অধিকাংশ সময়ই ইতিবাচক স্মৃতি হয়ে থাকে। তাই টিনেজের ১৫ থেকে ২৬ বছর বয়সের এই নির্ধারিত সময়ের অভিজ্ঞতা স্মৃতিতে বারবার ফিরে আসে এবং তা মনের পর্দায় ভেসে উঠে। ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষক ন্যান্সি কালিস দীর্ঘদিন পর একত্র হওয়া জুটিদের ওপর অনেকদিন গবেষণা করেছেন। গবেষণার ফল থেকে জানিয়েছেন, প্রথম প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর যখন পুনরায় আবার একত্র হয় তারা তখন তাদের সেই সম্পর্ক ৭০ শতাংশ পর্যন্ত পূর্ণতা পায়। অর্থাৎ এ থেকে বলা যেতে পারে প্রথম প্রেম ভুলতে না পারায় তারা পুনরায় সেই প্রথম মানুষটির সঙ্গেই জীবনের পরবর্তী সময় কাটানোর পরিকল্পনা করেন।

 

আপনার মতামত লিখুন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন বড় বোন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন তিনি।

ঢাকা অফিস

সম্পাদক : মোঃ ইয়াসিন টিপু

নাহার প্লাজা , ঢাকা-১২১৬

+৮৮ ০১৮১৩১৯৮৮৮২ , +৮৮ ০১৬১৩১৯৮৮৮২

shwapnonews@gmail.com

পরিচালনা সম্পাদক : মিহিরমিজি

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সপ্ন নিউজ
Powered By U6HOST