প্রত্যেক ভাস্কর্য ভাঙাই অপরাধ : জাফরুল্লাহ
স্বপ্ন নিউজ ডেস্ক
ডিসেম্বর ১৪, ২০২০, ৩:২০ অপরাহ্ণ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, এখন এক ব্যক্তির ভাস্কর্য ভাঙাটাই যেন অপরাধ, অন্য ভাস্কর্য ভাঙা যেন অপরাধ না। আমি বলবো প্রত্যেকটা ভাস্কর্য ভাঙাই অপরাধ। আজ সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত ‘শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস: বর্তমান বাস্তবতা’ শীর্ষক আলোচনায় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বুদ্ধিজীবী হত্যা প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, বাংলাদেশকে মেধাশূন্য করার পরিকল্পনা কি কেবল পাকিস্তানের পরিকল্পনা ছিল, আল বদর আল শামস তাদের পরিকল্পনা ছিল নাকি এই পরিকল্পনায় অন্য কেউ যুক্ত ছিল। সেটা আজ গবেষণার বিষয়বস্তু।

তিনি বলেন, বুদ্ধিজীবী হত্যার সেই নীলনকশা এখনও শেষ হয়নি। এখন অবশ্য কারণটা ভিন্ন। ব্যবসায়ী কারণ, আর তার চেয়ে কথা হলো স্বাধীনচেতা থাকে তাহলে মানুষ জাগরিত হয় প্রশ্ন করতে শেখে। আজকে আমরা যেন সেই প্রশ্ন করার অধিকারটা না পাই, মানুষ যেন প্রশ্ন না করে সেজন্যই সেই নীলনকশা অব্যাহত আছে। তবে পদ্ধতিটা একটু ভিন্ন আর কি।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশের) সভাপতি এম আব্দুল্লাহ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম বীরপ্রতীক, আইনজীবী এবিএম রফিকুল হক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মামুন আহমেদ প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন বড় বোন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন তিনি।

ঢাকা অফিস

সম্পাদক : মোঃ ইয়াসিন টিপু

নাহার প্লাজা , ঢাকা-১২১৬

+৮৮ ০১৮১৩১৯৮৮৮২ , +৮৮ ০১৬১৩১৯৮৮৮২

shwapnonews@gmail.com

পরিচালনা সম্পাদক : মিহিরমিজি

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সপ্ন নিউজ
Powered By U6HOST